Sports Bangla

স্বপ্নের তিন চরিত্র আবার মুখোমুখি

স্বপ্নের তিন চরিত্র আবার মুখোমুখি

স্বপ্নের তিন চরিত্র আবার মুখোমুখি
জুলাই ৩০
১৭:৪৩ ২০১৫

Exploreত্রিশ বছর কি পিছনে চলে যাওয়া যায় টাইম মেশিনে চড়ে? একেবারে ১৯৮৬ সালে! মেক্সিকো বিশ্বকাপে ম্যাচে গোল করে টাইব্রেকারে পেনাল্টিতে গোল মিস করছেন মিশেল প্লাতিনি৷ কিন্তু জিতে যাচ্ছেন৷ ওই একই ম্যাচে নির্ধারিত সময়ে পেনাল্টি মিস করে টাইব্রেকারে গোল করছেন জিকো। অথচ হেরে যাচ্ছেন ম্যাচে৷ এটা তো গুয়াদালাজারায় ম্যাচ৷ আবার মেক্সিকো সিটিতে একই ম্যাচে স্বপ্নের গোল, লজ্জার গোল করছেন দিয়েগো ম্যারাডোনা।

সেই স্বপ্নের তিন চরিত্র আবার মুখোমুখি হতে পারেন ২০১৬ সালে। অন্য লড়াইয়ে। এবার ফিফা বিশ্বকাপের জন্য নয়। ফুটবলের সর্বোচ্চ চেয়ার, ফিফা প্রেসিডেন্ট হওয়ার জন্য।

বুধবারই আনুষ্ঠানিকভাবে প্লাতিনি ঘোষণা করে দিলেন, ফিফা প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তিনি প্রার্থী হবেন। রিও ডি জেনিরো থেকে তখনই খবর এল, নির্বাচনে দাঁড়ানোর জন্য ব্রাজিল ফুটবল ফেডারেশন সিবিএফের দ্বারস্থ হলেন জিকো। তাকে যেন সমর্থন করা হয়, এই দাবি তুলে। বুয়েনস আইরেসে ম্যারাডোনার ঘোষণার স্টাইল অবশ্যই অন্যরকম হতে বাধ্য। সদ্য বাবা হারানো ম্যারাডোনা ফেসবুকে ভিডিও আপলোড করেছেন। সেখানেই তাঁর নাটকীয় ঘোষণা, ‘আমি ফিফা নির্বাচনে দাঁড়াব।’

Kwality- Milestoneতিন টার্ম ধরে উয়েফা প্রেসিডেন্ট পদে থাকা প্লাতিনি ফিফার ২০৯ দেশের প্রেসিডেন্ট ও সচিবকে এটাও লিখে দিয়েছেন, ‘কখনও কখনও ভাগ্যকে নিজের হাতে নিতে হয়। আমি জীবনের সেই অধ্যায়ে পৌঁছে গেছি। গত পঞ্চাশ বছরে আমরা দু’জন প্রেসিডেন্ট পেয়েছি ফিফায়। ফুটবলে ব্যাপক বদল হলেও ফিফায় স্থায়িত্ব এসেছে। তবে সাম্প্রতিক কিছু ঘটনা ফিফাকে বাধ্য করেছে নতুন এক অধ্যায় তৈরি করতে। অন্যরকম করে ভাবতে। আমি নিজেকে সেই প্রার্থী হিসেবে দেখছি, যে উৎসাহ নিয়ে কাজ করে। কিন্তু সব বিনয় নিয়ে জানাচ্ছি, একা কিছুতেই কেউ সফল হতে পারে না।’

ম্যারাডোনা ফেসবুকে বক্তৃতা আপলোড করেছেন নিজের মোবাইলে ছবি তুলে। তার মন্তব্য, ‘আমি সব আর্জেন্টাইনদের বলছি, আমি শক্তিশালী। ওরা আমাকে ভেঙে ফেলতে পারবেন না। আমি প্রচণ্ড শক্তিশালী। অনেক জনপ্রিয়তা রয়েছে। আমি আবার ফিরে আসছি সব নিয়ে। কাজে ফিরব। ফিফার জন্যই কাজে ফিরব।’

সম্প্রতি বাবা মারা যাওয়ার পাশাপাশি ম্যারাডোনার সঙ্গে সাবেক স্ত্রী ক্লদিয়ার মামলা চলেছে। এ নিয়েই বেশ টানাপোড়েনের মধ্যে রয়েছেন ম্যারডোনা। সেটাই উড়িয়ে দিতে চানি তিনি। বলেছেন, ‘আমি বাবার মৃত্যুর জন্য মোটেই হতাশায় ভুগছি না।’

Bright-sports-shop_bigজিকো আবার ব্রাজিলিয়ানদের সহানুভূতি আদায় করতে চেয়েছেন। বক্তব্য দিয়েছেন এভাবে, ‘আমি এক ব্রাজিলিয়ান। ব্রাজিলের জন্য ১০ বছর লড়েছি। আমি ব্রাজিল ফুটবল ফেডারেশনের প্রেসিডেন্টকে চিঠি দিয়েছি। উনি যদি উত্তর না দেন, বেশি অপেক্ষা করব না। অন্য রাস্তা দেখতে হবে।’

ফুটবলের সাব্কে এই তিন গ্রেট পরস্পরের বিপক্ষে দাঁড়িয়ে গেলে জিতবেন কে? ছিয়াশির বিশ্বকাপে ম্যারাডোনা জিততে পারেন। কিন্তু, এখানে অনেক এগিয়ে প্লাতিনি। ইতিমধ্যেই ৬টি মহাদেশের চারটি মহাদেশ প্লাতিনির পক্ষে দাঁড়িয়ে গেছে। সেখানে সর্বমোট ভোট ১৪৪টি। সব ভোট না পেলেও প্লাতিনি জিতে যেতে পারেন।

এশিয়ার ভোট অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এমনকি এশিয়ার দুই বড় কর্তা শেখ সালমান, শেখ আল সাবা ঝুঁকে পড়েছেন প্লাতিনির দিকে। মাস কয়েক আগে ব্ল্যাটারের বিরুদ্ধে এশিয়া থেকেই দাঁড়িয়েছিলেন জর্ডানের প্রিন্স আলি হুসেইন। তার এবারও দাঁড়ানোর ইচ্ছে। তিনি প্লাতিনিকে আক্রমণ করেছেন এই বলে যে, ‘প্লাতিনি ফিফার পক্ষে মোটেও ভালো হবেন না।’

এছাড়া ফিফার প্রেসিডেন্ট পদে দাঁড়াতে পারেন কোরিয়ার চুন মং জুন এবং ইউরোপের জেরোমে শ্যাম্পেন। ফ্রান্সের সাবেক তারকা ডেভিড জিনোলা আগে বলেছিলেন, দাঁড়াবেন। প্লাতিনি দাঁড়ানোর পর অঙ্ক বদলে যাচ্ছে। লুই ফিগোও এখন আর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দাঁড়ানোর কথা বলছেন না। তবে, আপাতত ফিফা নির্বাচনে এখনও পর্যন্ত অ্যাডভান্টেজ মিশেল প্লাতিনির। নতুন মেরুকরণ কিছু হলে তখন দেখা যাবে হয়তো ভিন্ন কিছু। সময়টা ২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

অক্টোবর ২০২০
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১