Sports Bangla

সাহসিকতার প্রশংসা জিম্বাবুয়ের

সাহসিকতার প্রশংসা জিম্বাবুয়ের

সাহসিকতার প্রশংসা জিম্বাবুয়ের
মে ২০
১৬:২৩ ২০১৫

ambiagroupদীর্ঘ ছয় বছরের অপেক্ষার অবসান হলো। ফের পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরলো। ২০০৯ সালের পর মঙ্গলবার প্রথম টেস্ট প্লেয়িং দেশ হিসেবে পাকিস্তান সফরে আসে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল। নিরাপত্তার কারণে আইসিসি ম্যাচ অফিসিয়াল পাঠাতে রাজি না হলেও দক্ষিণ আফ্রিকান দেশটি পাকিস্তান সফরে আসায় শহিদ আফ্রিদি তাদের সাহসী সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেন। ৬ বছর পর প্রথম টেস্ট খেলুড়ে দেশ হিসেবে জিম্বাবুয়ে পাকিস্তান সফরে আসায় দেশটির টি-২০ দলের অধিনায়ক শহিদ আফ্রিদি বেশ আনন্দিত। তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরায় আমি আনন্দিত। এটি দীর্ঘ ছয় বছরের শরৎকাল শেষে ক্রিকেটের জন্য যেন বসন্ত।’

এরপর জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দলের সাহসী সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেন পাকিস্তানের টি-২০ অধিনায়ক। তিনি বলেন, ‘জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দলের সাহসিকতা অবশ্যই প্রশংসা দাবি রাখে। দীর্ঘদিন ধরে যেই দর্শকরা ঘরের মাঠে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের পথ চেয়ে অপেক্ষায় ছিল তাদের মুখে হাসি ফুটিয়েছে জিম্বাবুয়ে।‘

Kwality (1)পাকিস্তানের বর্তমান ওয়ানডে অধিনায়ক আজহার আলীর ওয়ানডে অভিষেক হয় ২০১০ সালে। ঘরের মাঠে এখনও পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার সৌভাগ্য হয়নি তার। ফলে তার মতো যারা এখনও ঘরের মাঠে খেলতে পারেননি তাদের স্বপ্ন সত্যি হতে যাচ্ছে বলে মনে করেন আজহার। আজহার আলী বলেন, ‘পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরায় আমি অত্যন্ত গর্বিত। যারা আমার মতো ঘরের মাঠের দর্শকদের সামনে খেলেনি এবং নিজেদের মাটিতে খেলার স্বাদ কেমন তা উপভোগ করতে পারেনি তাদের জন্য বিশেষ একটি দিন হতে যাচ্ছে, স্বপ্ন পূরণ হতে যাচ্ছে।’

আজহার আলী ছাড়াও উমর আকমল, জুনায়েদ খান, রাহাত আলী, মোহাম্মদ ইরফান, আসাদ শফিক ও আহমেদ শেহজাদ এখনও পর্যন্ত ঘরের মাঠে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে পারেননি। জিম্বাবুয়ে সিরিজ তরুণদের মধ্যে ব্যাপক প্রভাব ফেলবে বলে মনে করেন আজহার। তিনি বলেন, ‘আমাদের দর্শকরা ঘরের মাটিতে নিজেদের তারকাদের দেখার ভাগ্য থেকে এতোদিন বঞ্চিত ছিল। আসন্ন সিরিজ তরুণ খেলোয়াড়দের আরও বেশি উদ্দীপ্ত করবে বলে আমি মনে করি। আশা করি কোনো ঝামেলা ছাড়া জিম্বাবুয়ের সিরিজটি শেষ হবে এবং আগামীতে আরও বেশি দল আমাদের মাটিতে এসে খেলবে।’

প্রসঙ্গত, কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে মঙ্গলবার পাকিস্তান সফরে আসা জিম্বাবুয়ে এই সফরে স্বাগতিকদের সঙ্গে ২টি টি-২০ ও ৩টি ওয়ানডে খেলবে। আগামী শুক্র ও রোববার টি-২০ ম্যাচ দুটি অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ২৬, ২৯ ও ৩১ তারিখে দল দুটি তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে মুখোমুখি হবে। সিরিজের সবগুলো ম্যাচই নিরাপত্তার কারণে লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে।

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

নভেম্বর ২০২০
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০