Sports Bangla

সানজামুলের ১০ উইকেট

সানজামুলের ১০ উইকেট

সানজামুলের ১০ উইকেট
সেপ্টেম্বর ১৯
১৪:৩১ ২০১৫

ambiagroupক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বারের মতো প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে ১০ উইকেট নেয়ার কৃতিত্ব  দেখিয়েছেন রাজশাহী বিভাগের সানজামুল ইসলাম। তারপরও দলকে বিপদ  থেকে বাঁচাতে পারেননি এই বাঁহাতি স্পিনার। উল্টো বরিশাল বিভাগের ডানহাতি পেসার তৌহিদুল ইসলামের ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে রাজশাহীকে ৩৭০ রানের কঠিন লক্ষ্য ছুড়ে দিয়েছে তারা।

জাতীয় ক্রিকেট লিগের দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে রাজশাহীর সংগ্রহ বিনা উইকেটে ২৫ রান। নাজমুল হোসেন ১৬ ও জহুরুল ইসলাম ৯ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ করেন। মুশফিকুর রহিমের দলকে জয়ের জন্য আরও ৩৪৫ রান করতে হবে। হাতে রয়েছে পুরো ১০ উইকেট এবং দু’দিন।

Bright-sports-shop_bigএদিকে দিনের আরেক ম্যাচে চট্টগ্রাম বিভাগের বিপক্ষে আগের দিনের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে চেয়েছিল সিলেট বিভাগ; কিন্তু বৃষ্টির কারণে দ্বিতীয় দিনে সেই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পারেনি অলক কাপালির দল। প্রথম দিনে রাজিন সালেহ ও রুম্মান আহমেদের ব্যাটে ৪ উইকেটে সিলেটের সংগ্রহ দাঁড়িয়েছিল ২৪০ রান। তবে দ্বিতীয় দিনে তাদের  সেই প্রচেষ্টায় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে বৃষ্টি। চট্টগ্রাম-সিলেট ম্যাচের দ্বিতীয় দিনের প্রায় দুটি সেশন বৃষ্টিতে ভেসে গেছে।

শনিবার রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে প্রথম ইনিংসে বরিশালের করা ৩০২ রানের জবাবে ৯৩ রানে গুটিয়ে যায় মুশফিকুর রহিমের দল। আগের দিনের দুই উইকেটে ১৯ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করে রাজশাহী। পেসার তৌহিদুল ইসলামের বিধ্বংসী বোলিংয়ে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। মুশফিকের ব্যাট থেকে এসেছে সর্বোচ্চ ৩২ রান। তৌহিদুল একাই শিকার করেন ৬টি উইকেট। এছাড়া গোলাম কবির ৩টি ও সোহাগ গাজী পান ১টি উইকেট।

২০৯ রানের লিড পেলেও রাজশাহীকে ফলোঅন করায়নি বরিশাল। দ্বিতীয় ইনিংসে তাদের ১৬০ রানে অলআউট করে লক্ষ্যটা চারশ’ রানের নীচে রাখতে পেরেছে রাজশাহী। সানজামুলের সঙ্গে ফরহাদ হোসেন ও ফরহাদ রেজার দারুণ বোলিংয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ভালো করতে পারেনি বরিশালের ব্যাটসম্যানরা। প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরি করা মোসাদ্দেক হোসেন করেন সর্বোচ্চ ৪০ রান। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৫ রান আসে অধিনায়ক ফজলে মাহমুদের ব্যাট থেকে। এছাড়া সোহাগ গাজী করেন ২৫ রান। সানজামুল ইসলাম ৪টি, ফরহাদ রেজা ও ফরহাদ হোসেন পান ৩টি করে উইকেট।

এদিকে শনিবার ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী  স্টেডিয়ামে আগের দিনের করা ৪ উইকেটে ২৪০ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করে সিলেট বিভাগ। ৭২ রানে অপরাজিত থাকা রাজিন সালেহ এদিন মাত্র ২ রান  যোগ করে ব্যক্তিগত ৭৪ রানে সাজঘরে ফেরেন।

আগেরদিনের ৭০ রানে অপরাজিত থাকা রুম্মান আহমেদ এদিন আর ১০ রান যোগ করে ৮০ রানে এলবিডব্লুর ফাঁদে পড়েন। আবুল হাসানের ৩২ ও রাহাতুলের অপরাজিত ৫৬ রানের ওপর ভর করে সাড়ে তিনশ’র উপরে স্কোর দাঁড় করায় সিলেট।  চট্টগ্রামের নাবিল সামাদ নেন ৩টি উইকেট। এছাড়া মেরাজুল হক ও মোহাম্মদ সাইফু্দ্দিন ২টি করে উইকেট পান।

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০২০
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০