Sports Bangla

রাতারাতি চেলসির পেদ্রো!

রাতারাতি চেলসির পেদ্রো!

রাতারাতি চেলসির পেদ্রো!
আগস্ট ২০
১০:৩২ ২০১৫

Milestone-wedding-1-main colorগোটা ফুটবল বিশ্ব জানত, তিনি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড যাচ্ছেন বার্সেলোনা ছেড়ে। মাঝে ম্যানচেস্টার সিটিও তাকে নেবে বলে শোনা গিয়েছিল। এমনকি আগের দিনই ম্যানইউ কর্মকর্তারা তার সঙ্গে কথা বলতে বার্সেলোনা গিয়েছিলেন। সেই পেদ্রোকে হঠাৎই হাইজ্যাক করে বসলেন চেলসি কোচ হোসে মরিনহো। স্রেফ হাইজ্যাক হয়েই তিনি সই করে বসলেন চেলসিতে।

পেদ্রো হাতছাড়া হওয়ায় ম্যানইউর টার্গেট এখন বায়ার্ন মিউনিখের টমাস মুলার। ৬ কোটি পাউন্ডের টোপ দিয়েছে তারা মুলারকে পেতে। ম্যানসিটি চেষ্টা করছে বুন্দেসলিগার বেলজিয়ান তারকা কেভিন ডি ব্রুইনকে ৫ কোটিতে পেতে।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শুরুতেই রীতিমত খোঁড়াতে শুরু করেছে চেলসি। ম্যানসিটির কাছে ধ্বংস হওয়ার পরে মরিনহো চাইছিলেন ভরসা করার মতো মুখ। শেষ মূহূর্তে তাই তারা ঝোপ বুঝে কোপই মেরে দিল। পেদ্রোকে নিয়ে আসল স্ট্যাম্পফোর্ড ব্রিজে।

শুরুতে তারা পেদ্রোর দাম বাড়িয়ে দেয়। ম্যানইউ যে অর্থ দেবে, তার থেকে অনেক বেশি অর্থ দিতে চায় তারা। ম্যানইউ বাড়তি অর্থ দিচ্ছিল অন্য হিসেব দেখিয়ে। চেলসি সরাসরি সেই অর্থই দিয়ে দেয়। তাতেই টেক্কা। ম্যানইউ দিতে চাইছিল ১ কোটি ৭০ লক্ষ পাউন্ড। চেলসি দিতে চায় ১ কোটি ৯০ লক্ষ পাউন্ড। পরে সেটাই বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ১০ লক্ষ পাউন্ডে। পেদ্রোকে চেলসিতে আনার ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা নেন বার্সায় সাবেক দুই সতীর্থ সেস ফাব্রেগাস ও ভিক্টর ভালদেস।

Kwality

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০২০
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০