Sports Bangla

যন্ত্রণা থেকে মুক্তি

যন্ত্রণা থেকে মুক্তি

যন্ত্রণা থেকে মুক্তি
সেপ্টেম্বর ০২
০৫:৩৫ ২০১৫

ambiagroupঅসহ্য যন্ত্রণা থেকে আপাতত মুক্তি মিলেছে তিন পাকিস্তানি ক্রিকেটার সালমান বাট, মোহাম্মদ আমের এবং মোাহাম্মদ আসিফের। ২০১০ সালে লর্ডস টেস্টে স্পট ফিক্সিংয়ের দায়ে অভিযুক্ত এই তিন ক্রিকেটারকে ১০ বছর থেকে ৫ বছর পর্যন্ত বিভিন্ন মেয়াদে নিষেধাজ্ঞার শাস্তি দিয়েছিল আইসিসির দুর্নীতিদমন সংস্থা আকসু। পরে তিনজনেরই শাস্তি সমান ৫ বছর করে করা হয়। যার মেয়াদ শেষ হয়ে গেলো ১ সেপ্টেম্বর। আইসিসি থেকেও আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দেয়া হয়েছিল, শাস্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় ২ সেপ্টেম্বর থেকে ঘরোয়া-আন্তর্জাতিক যে কোন পর্যায়ের ক্রিকেটের জন্য তারা সম্পূর্ণ মুক্ত।

আইসিসির সে ঘোষণা অনুযায়ী, মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকেই ক্রিকেটাশে এখন মুক্ত বিহঙ্গ ফিক্সিংয়ের দায়ে শাস্তি পাওয়া তিন ক্রিকেটার মোহাম্মদ আমের, মোহাম্মদ আসিফ এবং সালমান বাটরা। ২০১০ সালে লর্ডস টেস্ট চলাকালে স্পট ফিক্সিং করাকালে তখনকার প্রভাবশালি ব্রিটিশ পত্রিকা নিউজ ওয়ার্ল্ডের হাতে ধরা পড়েন পাকিস্তানের এই তিন ক্রিকেটার। একেবারে ভিডিওসহ হাতে-নাতে ধরা পড়ার পর ওই সময়ই তোলপাড় সৃষ্টি হয় পুরো ক্রিকেট বিশ্বে।

Bright-sports-shop_bigএরপর আইসিসির অ্যান্টি করাপশন অ্যান্ড সিকিউরিটি ইউনিটের (আকসু) ট্রাইব্যুনালে এদের ব্যাপারে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। যেখান প্রথমে সালমান বাটের ১০ বছর, মোহাম্মদ আসিফের ৭ বছর এবং মোহাম্মদ আমেরের ৫ বছরের নিষেধাজ্ঞার শাস্তির কথা ঘোষণা করা হয়। পরে অবশ্য আসিফ আর বাটের শাস্তি কমিয়ে ৫ বছরে নামিয়ে আনা হয়।

একই সঙ্গে বৃটিশ আইনে মানি লন্ডারিং এবং প্রতারনার শাস্তি হিসেবে লন্ডনে কারাবাসের শাস্তিও পেতে হয় তিন পাকিস্তানিকে। শেষ পর্যন্ত সব কিছু পেছনে ফেলে আবারও ঘরোয়া এবং আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার সুযোগ পেলেন এই তিনজন।

যদিও আট মাস আগে ঘরোয়া ক্রিকেটে ফেরার জন্য আমিরকে অনুমতি দেওয়া হয়। সে হিসেবে অনেক আগেই ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরেছেন ২৩ বছর বয়সী আমির। একই সঙ্গে নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়া আগামী মাসে আরব আমিরাতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অনুষ্ঠিতব্য সিরিজের জন্য বিবেচনায় আনা যাবে এই তিন ক্রিকেটারকে।

তবে, সহসাই যে তাদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরা হবে, সে সম্ভাবনা খুবই কম। কারণ, পিসিবি ইতিমধ্যে জানিয়ে দিয়েছে, নিষেধাজ্ঞা শেষ হলেও, বাট-আসিফের ক্রিকেটে ফিরে আসতে সময় লাগবে। একটা পূনর্বাসন প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়েই তারপর তারা ক্রিকেটে ফেরার যোগ্য হবে। এমনকি আগামী মাসে রাওয়ালপিন্ডিতে অনুষ্ঠিতব্য ঘরোয়া টি২০ কাপেও অংশ নিতে পারছেন না এই দু’জন।

বাট-আসিফ না পারলেও খুব সহসাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে পারেন মোহাম্মদ আমির। কারণ, দীর্ঘ আট মাসেরও বেশি সময় তিনি ঘরোয়া ক্রিকেট খেলছেন। পুনর্বাসন প্রক্রিয়া যা হওয়ার দরকার তা হয়ে গেছে। এবার নিষেধাজ্ঞার মেয়াদও যখন শেষ হয়ে গেলো, তখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে তার আর কোন বাধা নেই।

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

জানুয়ারি ২০২১
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১