Sports Bangla

মিলার-প্যাটেলে জয় পাঞ্জাবের

মিলার-প্যাটেলে জয় পাঞ্জাবের

মিলার-প্যাটেলে জয় পাঞ্জাবের
সেপ্টেম্বর ২০
১৮:৪৩ ২০১৪

Bright-sports-shop_bigপাঞ্জাবকে কঠিন পরীক্ষাতেই ফেলেছিল বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টস। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, থিসারা পেরেরাকে দ্রুত ফিরিয়ে জয়ের আশাও জাগিয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের দলটি। কিন্তু ডেভিড মিলার আর অক্ষর প্যাটেলের দৃঢ়তায় শেষ হাসি হাসে আইপিএল দলটিই।

সিপিএল চ্যাম্পিয়ন বার্বাডোজকে ৪ উইকেটে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ টি-টোয়েন্টিতে টানা দ্বিতীয় জয় পেয়েছে পাঞ্জাব।

শনিবার মোহালির পাঞ্জাব ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেটে ১৭৪ রান করে বার্বাডোজ।

র্যা মন রেইফার ও দিলশান মুনাবিরার দুটি অর্ধশতকের ওপর ভর করে ওয়েস্ট ইন্ডিজের দলটি পাঞ্জাবকে বড় লক্ষ্য দেয়।

সর্বোচ্চ ৬০ রানে অপরাজিত থাকেন রেইফার। তার ৪২ বলের ইনিংসটি ৪টি ছক্কা ও ৩টি চার সমৃদ্ধ। বার্বাডোজকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেয়া মুনাবিরার ব্যাট থেকে আসে ৫০ রান। তার ২৬ বলের ইনিংসটি ৫টি চার ও ৩টি ছক্কায় সাজানো।

পাঞ্জাবের পারভিন্দর আওয়ানা ৩ উইকেট নেন ৪৬ রানে।

জবাবে দুই বল বাকি থাকতেই ৬ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ভারতের দল পাঞ্জাব।

বীরেন্দর শেবাগ (৩১), মানান ভোহরা (২৭), ঋদ্ধিমান সাহা (১৪) ও ম্যাক্সওয়েল (১৬) দুই অঙ্কে পৌঁছলেও নিয়মিত উইকেট পাওয়ায় নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয়ের পথেই ছিল বার্বাডোজ। কিন্তু মিলার আর প্যাটেলের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে হার এড়াতে পারেনি দলটি। অবিচ্ছিন্ন সপ্তম উইকেটে মাত্র ১৯ বলে ৪৭ জুটি গড়ে পাঞ্জাবকে জয় এনে দেন এই দুজন।

৩৪ বলে ৩টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে ৪৬ রানে অপরাজিত থাকেন মিলার। আর ২৩ রানে অপরাজিত থাকা প্যাটেলের ৯ বলের ইনিংসটি গড়া ৩টি চার ও ১টি ছক্কায়।

বার্বাডোজের জিবন মেন্ডিস ও রবি রামপল দুটি করে উইকেট নেন। রামপলের করা ১৯তম ওভারে ২০ রান নিয়েই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেন মিলার ও প্যাটেল।

 

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

অক্টোবর ২০২০
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১