Sports Bangla

বিশ্বকাপের মজার তথ্য

বিশ্বকাপের মজার তথ্য

বিশ্বকাপের মজার তথ্য
ফেব্রুয়ারি ০৪
১১:৫৬ ২০১৫

Sportsbangla Quiz_1_1১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মাটিতে শুরু হবে একাদশতম ক্রিকেট বিশ্বকাপের আসর। দ্বীপ মহাদেশের ক্রিকেটযজ্ঞে টেস্ট খেলুড়ে দশটি দেশের সঙ্গে আইসিসির সহযোগী আরো চারটি দেশ অংশগ্রহণ করবে টুর্নামেন্টে। অবশ্য রোমাঞ্চ জাগানিয়া মূল সেই আসর শুরু হতে আরো নয় দিন বাকি।কিন্তু তার আগে আসুন জেনে নেই বিশ্বকাপের কিছু খুঁটিনাটি-

১. ইংল্যান্ডে ১৯৭৫ সালে সর্বপ্রথম ক্রিকেট বিশ্বকাপের আয়োজন করা হয়। ওয়ানডে ক্রিকেট প্রবর্তনের চার বছর পর। ১৯৭১ সালে মেলবোর্নে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার টেস্ট ম্যাচের পঞ্চম দিনের খেলা বৃষ্টিতে ভেসে গেলে বিকল্প ভাবনার ফসল হিসেবে একটি ৬০ ওভারি ম্যাচের আয়োজন করা হয়।

FMC-Sports-logo-300x133২. ১৯৭৫ ও ১৯৭৯ সালে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ক্রিকেটের প্রথম দুটি বিশ্বকাপ জিতে নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। চার বছর বাদে ১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপেও ফাইনালে ওঠে তারা। কিন্তু ভারতের বিপক্ষে ফাইনালে হারে ক্যারিবিয়রা। তারপর থেকে আর কোনো বিশ্বকাপের ফাইনালেই নাম লেখাতে পারেনি উইন্ডিজ।

৩. ১৯৮৭ সালে অ্যালান বোর্ডারের নেতৃত্বে প্রথম বিশ্বকাপ জেতে অস্ট্রেলিয়া। এরপর টেস্ট ও ওয়ানডে পরবর্তী ২০ বছর এক প্রকার একচ্ছত্র রাজত্ব করে অসিরা। ২০১১ সালে সেই বিক্রমে ছেদ টানে ভারত।

Wedding Snaps (11)৪. ১৯৮৩ সালের পর ২০১১ সালেও বিশ্বকাপ জেতে ভারত। ক্রিকেটের সর্বোচ্চ আসরে সফলতা লাভ করেছে উপমহাদেশের আরো দুই দল শ্রীলঙ্কা (১৯৯৬) এবং পাকিস্তানও (১৯৯২)।

৫. রাউন্ড রবিন পদ্ধতিতে দুই গ্রুপে বিভক্ত হয়ে ১৪টি দল বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করবে। আর প্রত্যেক গ্রুপের সেরা চার দল নাম লেখাবে কোয়ার্টার ফাইনালে।

৬. নিউজিল্যান্ডে একটি কোয়ার্টার ফাইনাল ও একটি সেমিফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। সেজন্য অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে না খেলেই ফাইনালে ওঠার সুযোগ আছে ব্লাক ক্যাপসদের।

৭. ২০১৫ বিশ্বকাপের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে মেলবোর্নের এমসিজিতে। ইংল্যান্ডের লর্ডসের পর পৃথিবীর দ্বিতীয় ক্রিকেট ভেন্যু হিসেবে দুটি ফাইনাল আয়োজনের কীর্তি দেখাবে অস্ট্রেলিয়ার বিখ্যাত ভেন্যুটি।

৮. বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ২ হাজার ২৭৮ রানের নজির ভারতের শচীন টেন্ডুলকারের। ৪৫ ম্যাচে এই রান সংগ্রহ করেন ক্রিকেট ঈশ্বর। ক্রিকেট যজ্ঞে সর্বোচ্চ ছয় সেঞ্চুরিও ভারতীয় ব্যাটিং মায়েস্ত্রোর। তাছাড়া এক আসরে সর্বোচ্চ ৬৭৩ রানও লিটল জিনিয়াসের। ২০০৩ সালে ওই রেকর্ড গড়েন তিনি।

৯. বিশ্বকাপে ৩৯ ম্যাচে সর্বোচ্চ ৭১ উইকেট গ্লেন ম্যাকগ্রার। ২০০৩ সালের বিশ্বকাপে মাত্র ১৫ রানের বিনিময়ে ৭ উইকেট দখল করেছিলেন অসি পেস কিংবদন্তি।

১০: বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রানের ইনিংস খেলার কীর্তি দক্ষিণ আফ্রিকার গ্যারি কারস্টেনের। ১৯৯৬ সালের বিশ্বকাপে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে ১৮৮ রানের ইনিংস খেলেছিলেন প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান।

১১. বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ডিসমিসাল অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডাম গিলক্রিস্টের। আর নন উইকেটকিপার হিসেবে সবচেয়ে বেশি ক্যাচ নেয়ার নজির রিকি পন্টিংয়ের।

Ambia 2

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০২০
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০