Sports Bangla

বিতর্কে কোহলি!

বিতর্কে কোহলি!

বিতর্কে কোহলি!
জানুয়ারি ২৮
০৮:৪৫ ২০১৫

royal-magnum_big‘মুদগল কমিটির রিপোর্টের রহস্যময় দু’নম্বর ব্যক্তি কি মহেন্দ্র সিংহ ধোনি?’ মাসখানেক আগে চাঞ্চল্যকর এই শিরোনাম নিয়ে বিস্ফোরক একটা রিপোর্ট বেরিয়েছিল মুম্বইয়ের এক সংবাদপত্রে। এবং নতুন বছরে হঠাৎ করেই যা নতুন বিতর্ক তৈরি করে দিল। যে বিতর্কে ধোনির সঙ্গে জুড়ে গেল বিরাট কোহলির নাম।

শনিবার টুইটার-জগৎ হঠাৎই আবিষ্কার করে যে, ধোনি-বিরোধী ওই রিপোর্টটা নিজের পঞ্চাশ লক্ষের বেশি ফলোয়ারদের ‘রিটুইট’ করেছেন বিরাট। শুধু তাই নয়, টুইটারে নিজের ‘ফেভারিট’ তালিকাতেও রিপোর্টটা রয়েছে। রহস্যময় আবির্ভাবের মতোই রহস্যজনক ভাবে আবার উধাও হয়ে যায় টুইটটা। শনিবার দুপুর তিনটে নাগাদ দেখা যায়, টুইটটা ‘ডিলিট’ করে দেওয়া হয়েছে।

কিন্তু ততক্ষণে আগুন যা ছড়াবার, ছড়িয়ে গিয়েছে। ক্রিকেটমহলে প্রশ্নের ঝড় উঠে গিয়েছে যে, কোহলি কি তা হলে খোলাখুলি ধোনি-বিরোধী শিবিরে নাম লিখিয়ে ফেললেন? তবে অনেকেই মনে করছেন, এই ব্যাপারে কোহলিকে ‘বেনিফিট অব ডাউট’ দেওয়া উচিত। হয়তো বিরাট নিজে রিপোর্টটা রিটুইট করেননি। হয়তো তার টুইটার অ্যাকাউন্ট বেআইনি ভাবে ব্যবহার করে অন্য কেউ কাজটা করেছে। তারকাদের টুইটার বা ফেসবুক প্রোফাইল ‘হ্যাক’ হওয়া তো নতুন নয়।

মুদগল কমিটির রিপোর্টে স্পষ্ট বলা হয়েছিল যে, গুরুনাথ মইয়াপ্পন নিয়ে সত্যি কথা বলেননি চেন্নাই সুপার কিংস অধিনায়ক ধোনি। তিনি কমিটিকে বলেছিলেন যে, মইয়াপ্পন নাকি নিছকই ক্রিকেট-উৎসাহী। কিন্তু তদন্তে নিঃসংশয় ভাবে প্রমাণিত হয়, মইয়াপ্পন টিমের অন্যতম কর্ণধার।

Ambia all

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

অক্টোবর ২০২০
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১