Sports Bangla

ফ্রান্সেই ক্রিকেটের জন্ম!

ফ্রান্সেই ক্রিকেটের জন্ম!

ফ্রান্সেই ক্রিকেটের জন্ম!
আগস্ট ৩১
১৪:৪৪ ২০১৫

ambiagroupক্রিকেটের জন্ম কোথায়! চোখ বন্ধ করে সবাই বলে দেবে ‘ইংল্যান্ড’। বৃটিশদের রাজকীয় খেলা নামেই পরিচিত ক্রিকেট। কিন্তু, সত্যি কী ব্রিটিশরা ক্রিকেটের জন্ম দিয়েছেন! নতুন বিতর্ক শুরু হয়ে গেছে ফ্রান্সের একটি দাবিতে। যে দেশে ক্রিকেটের চল বলতে খুবই, সে দেশেই কি না ক্রিকেট খেলার জন্ম? খোলসা করে বললে, নতুন একটি তথ্য দাবি করছে, ইংল্যান্ড নয় ফ্রান্সেই না কি ক্রিকেট খেলার জন্ম। আপাতত যা নিয়ে বিতর্কে তোলপাড় এখন ক্রিকেট বিশ্ব।

সময়টা ১৪৭৮ সাল। উত্তর ফ্রান্সের লিয়েত্রেস গ্রামে অদ্ভুত এক খেলা চলছিল। এস্তিয়াভানে নামে ২২ বছরের এক যুবক বল (boules) এবং কাঠের পোস্ট (criquet)-এর সেই খেলা বেশ কিছুক্ষণ ধরে দেখছিলেন। একজন খেলোয়াড় হঠাৎ জিজ্ঞেস করেন, ‘তুমি আমাদের বল গেম দেখছ কেন?’ এরপর তাদের মধ্যে বাদানুবাদও হয়ে যায়, এমনকি একজন মারাও যান।

Bright-sports-shop_bigতৎকালীন ফ্রান্সের রাজা একাদশ লুইকে পাঠানো এক অভিযোগপত্র থেকে এই ঘটনার কথা জানা যায়। চিঠিটি এখনও ফ্রান্সের জাতীয় আর্কাইভসে সংরক্ষিত রয়েছে। মনে করা হচ্ছে, বিশ্বের কোথাও ক্রিকেট খেলার কথা ওই চিঠিতেই প্রথম উল্লেখ করা হয়েছে। যদিও কীভাবে এই খেলা হত, তার কোন বিবরণ নেই ওই চিঠিতে।

ফ্রান্সের সঙ্গে ক্রিকেটের সম্পর্ক বলতে ১৯০০ সালে প্যারিস অলিম্পিকের একমাত্র ক্রিকেট ম্যাচে তাদের দলের যোগদান। মাত্র দু’টো দল থাকায় গ্রেট ব্রিটেন দলের কাছে হেরে রুপা জিতেছিল ফ্রান্সই। পরে ১৯৮৭ থেকে আইসিসির সহযোগি সদস্য হিসেবে ইউরোপে ক্রিকেট খেলে ফরাসিরা।

সর্বজনবিধিত এবং লিখিত ইতিহাস অনুযায়ী ইংল্যান্ডেই ক্রিকেট খেলার জন্ম। ১৫৯৮-এর একটি মামলার সূত্র ধরে ক্রিকেটের প্রথম উল্লেখ সামনে আসে ইংল্যান্ডে। কিন্তু, নতুন তথ্য বলছে, তারও প্রায় এক শতাব্দী আগে ফ্রান্সে এই খেলার প্রচলন ছিল। যদিও অনেকেই দাবি করেন, বর্তমান ক্রিকেটের আগের ফর্মের কোনও খেলার উল্লেখ ইংল্যান্ডের বিভিন্ন খেলায় চতুর্দশ শতাব্দীতেও পাওয়া যায়।

লিয়েত্রেসে প্রথম ক্রিকেট খেলার কথা জানাজানি হতে না হতেই সেই গ্রামের বাসিন্দারা আগামী মাসেই একটি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করেছে। এ জন্য একটি গো-চারণভূমিকে মাঠের চেহারা দেওয়ার চেষ্টা চলছে। ২৬, ২৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে ২০ওভারের ম্যাচ। সেখানে খেলবে লিলে ক্রিকেট ক্লাব, বেলজিয়ামের ঘেন্ট এবং কেন্টের হোইটস্টেবল।

Explore1শুধু তা-ই নয়, এই অঞ্চলকে ভবিষ্যতে ক্রিকেট প্রেমীদের তীর্থ বানাতে উঠে পড়ে লেগেছে ফরাসি সরকারও। যেখানে ২০১৬ সালে ‘লিয়েত্রেস ১৪৭৮ চ্যালেঞ্জ’ নামে একটি টুর্নামেন্ট আয়োজনের কথা ভাবা হচ্ছে। যার সূত্র ধরে ফ্রান্সও তাদের দেশের প্রথম ক্রিকেট মাঠ পেতে চলেছে। যেখানে ব্যাটিংয়ের জন্য উইকেট, প্যাভিলিয়ন, স্কোরবোর্ড- সবই থাকবে।

লিয়েত্রেসের পর্যটক বোর্ডের ডিরেক্টর অ্যানে দেবস্কে বলেন, ‘খেলা হিসেবে ফ্রান্সে ক্রিকেট খুব পরিচিত নয়। কিন্তু এখানে এই খেলা নিয়ে আগ্রহ তৈরি হচ্ছে। মনে হচ্ছে, এখানে যে টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হয়েছে, তাতে ইংল্যান্ড এবং অন্য দেশের লোকও আসবেন। ঐতিহাসিক চ্যানেল টানেলের এক কিলোমিটারের মধ্যে এই জায়গায় খেলা হলে, এই অঞ্চলের ইতিহাস সম্পর্কেও লোকে জানবে।’

ফ্রান্সে এখন ১ হাজার নথিবদ্ধ ক্রিকেটার রয়েছেন। তিনস্তরের জাতীয় লিগ রয়েছে, যেখানে ৩০টি ক্লাব ক্রিকেট খেলে। ফ্রান্সে যারা ক্রিকেট খেলেন, তাদের বেশিরভাগই দক্ষিণ এশিয়ার কোনও না কোন দেশ বা ইংল্যান্ড থেকে ওখানে গিয়েছেন।

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০২০
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০