Sports Bangla

নয়নাভিরাম জমকালো উদ্বোধনী

নয়নাভিরাম জমকালো উদ্বোধনী

নয়নাভিরাম জমকালো উদ্বোধনী
ফেব্রুয়ারি ১২
১২:৪০ ২০১৫

royal-magnum_bigশুরু হয়ে গেল বিশ্বকাপ ক্রিকেটের আসর। ময়দানী লড়াই শুরু হবে ১৪ ফেব্রুয়ারি। এর আগে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হয়ে গেল আসরের বর্নিল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। আসর একটি হলেও এ দিন প্রায় একই সময়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে দুটি উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। আয়োজক যৌথভাবে দুই দেশ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড। ফলে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানও দুইবার হয়েছে। বৃহস্পতিবার অর্থাৎ, মূলযজ্ঞ শুরুর দুই দিন আগে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের হাগলি ওভালে ও অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে শেষ হয়েছে বিশ্বকাপের নয়নাভিরাম উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

মেলবোর্নের সিডনি মায়ার মিউজিক বোলে উদ্বোধনীর আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার চেয়ারম্যান ওয়ালি অ্যাডওয়ার্ডস। শুরু হয় আতশবাজি, গান, আর নানা রকম ডিসপ্লে। এর মধ্যে আকষর্ণীয় ছিল রোবট আকৃতির এক বড় ব্যাটসম্যান। যা পেছন থেকে মূলত নিয়ন্ত্রণ করেছে কলাকুশীলরা। ধীরে ধীরে রান নেয়া, ছক্কা হাকানোসহ নানা রকম শটই খেলেছে ব্যাটসম্যান।

Wedding Snaps (11)উপস্থিত ছিলেন ১৪টি দেশের অধিনায়কদের সঙ্গে থাকছেন বিশ্বকাপের সাবেক ও বর্তমান খেলোয়াড়েরা। ক্রিকেটের রথী-মহারথীদের মিলনমেলায় সুরের মূর্ছনায় মোহাবিষ্ট করেন পপতারকা জেসিকা হিলডা মাওবো, টিনা এরেনাসহ আরও অনেকেই। মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে তুলে ধরা হয় অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্য। তারপর লাল-নীল-সবুজ-বেগুনি অজস্র আলোর ঝলকানি আর আতশবাজির ভেলকিতে মুগ্ধ হন আগত দর্শকরা।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের বিশ্বকাপ জার্সি পরে ‘চলো বাংলাদেশ, চলো বিশ্ব উঠোনে’ শিরোনামের গানটির সঙ্গে নৃত্য পরিবেশন করেছেন বাংলাদেশের একদল পারফরমার। আর মঞ্চের সামনে উপস্থিত অজস্র বাংলাদেশীও নেচেছে সেই গানের তালে তালে। এ সময় পিছনের জায়ান্ট স্ক্রিণে শোভা পেয়েছে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা। ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, ইংল্যান্ড, স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াসহ অন্যান্য অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর পক্ষেও পরিবেশিত হয়েছে নিজস্ব সংস্কৃতির পারফরম্যান্স।

Bright-sports-shop_bigএর আগে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের হাগলি ওভালে ব্লাক ক্যাপসরা নিজেদের ইতিহাস-ঐতিহ্যে পর্দা ওঠানোর চেষ্টা করেছে। অনুষ্ঠানে উপস্থিতি ছিলেন নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের তিন দিকপাল—কিংবদন্তি রিচার্ড হ্যাডলি, সাবেক অধিনায়ক স্টিভেন ফ্লেমিং এবং বর্তমান অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। নিউজিল্যান্ডের কিংবদন্তি সব খেলোয়াড়ের অংশগ্রহণে একটি স্পেশাল ভিডিও ফুটেজ দেখানো হয় পর্দায়। সংগীত পরিবেশন করে সবার মন মাতান সোল থ্রি মায়ো (নিউজিল্যান্ডের গায়ক-ত্রয়ী), জিনি ব্ল্যাকমোর, হেইলে ওয়েস্টেনের মতো তারকা শিল্পীরা। সঙ্গে আকাশ আলো করা আতশবাজিতো ছিলই।

দ্বিতীয়বারের মতো তাসমান প্রতিবেশীরা বিশ্ব ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসরটির আয়োজক। এর আগে ১৯৯২ বিশ্বকাপের আয়োজন করেছিল দেশ দুটি। ২৩ বছরের ব্যবধানে বদলেছে অনেক কিছুই, কিন্তু কমেনি ক্রিকেটের প্রতি অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড সমর্থকদের ভালোবাসা-অনুরাগ। তাই জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দিয়ে তাকই লাগিয়ে দিতে চেয়েছেন এবারের আসরের আয়োজকেরা।

আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি শুরু হবে ব্যাট-বলের লড়াই। প্রথম দিনের মুখোমুখি হবে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কা এবং স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড। আসরের পর্দা নামবে আগামী ২৯ মার্চ, মেলবোর্নে অনুষ্ঠিতব্য ফাইনাল ম্যাচের মধ্য দিয়ে।

Ambia 1

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

এপ্রিল ২০২১
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০