Sports Bangla

নতুন ইতিহাস রাবাদার

নতুন ইতিহাস রাবাদার

নতুন ইতিহাস রাবাদার
জুলাই ১০
১৫:৩৭ ২০১৫

ambiagroupএকটু কী মন খারাপ হলো তাইজুল ইসলামের! ইতিহাসের একমাত্র বোলার হিসেবে এতদিন আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচে অভিষেকেই হ্যাটট্রিক করার রেকর্ডটি দখল করে রেখেছিলেন বাংলাদেশের এই স্পিনার। শুক্রবার সেই রেকর্ডে ভাগ বসালেন আরেকজন বোলার। শুধু ভাগই বসালেন না, বোলিং নৈপুণ্যে তাইজুলকে পিছনেও ফেললেন। তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার তরুণ পেসার কাগিসো রাবাদা। কাকতালীয়ভাবে তার এই রেকর্ডেও জড়িয়ে গিয়েছে বাংলাদেশের নাম।

মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে শুক্রবার ৩ ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে মুখোমুখি হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা ও স্বাগতিক বাংলাদেশ। কাগিসো রাবাদার জন্য এটি ছিল অভিষেক ওয়ানডে।

ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাটিং করতে নেমেছিল বাংলাদেশ। বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে স্বাগতিকদের শুরুটা খারাপ ছিল না। কিন্তু হিসেব পাল্টে দিয়েছেন রাবাদা। ম্যাচের চতুর্থ ওভারের চতুর্থ, পঞ্চম ও ষষ্ঠ বলে একে একে তামিম ইকবাল, লিটন দাশ ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের উইকেট তুলে নিয়েছেন তিনি। ফলে দলকে সাফল্য এনে দেওয়ার পাশাপাশি অভিষেক ওয়ানডেতে ইতিহাসের দ্বিতীয় বোলার হিসেবে হ্যাটট্রিক করার গৌরবও অর্জন করেছেন এই ২০ বছর বয়সী পেসার।

Kwality- Milestoneগত বছর ডিসেম্বরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অভিষেক ওয়ানডে খেলতে নেমে হ্যাটট্রিক করেছিল তাইজুল ইসলাম। ইতিহাসের প্রথম বোলার হিসেবে এমন বিরল কৃতিত্ব দেখিয়েছিলেন তিনি। মিরপুরের মাঠেই এই রেকর্ড গড়েছিলেন তাইজুল। ফলে ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেক ম্যাচেই হ্যাটট্রিকের দুটি রেকর্ডেই জড়িয়ে রইল বাংলাদেশ, সঙ্গে মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের নামও।

এদিন কেবল অভিষেকে হ্যাটট্রিক নয়, আরও অনেক রেকর্ডই সঙ্গী হয়েছে কাগিসো রাবাদার নামের পাশে। কার্টেল ওভারের এই ম্যাচে পুরো ৮ ওভার বল করে মাত্র ১৬ রান দিয়ে ৬ উইকেট নিয়েছেন রাবাদা। ওয়ানডেতে যা অভিষেক ম্যাচে কোনো বোলারের সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড। তাইজুল অভিষেক ম্যাচটিতে হ্যাটট্রিকসহ ৪ উইকেট নিয়েছিলেন। আর অভিষেকে সেরা বোলিং ইনিংসটি এতদিন ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের পেসার ফিদেল এডওয়ার্ডস। মেডেন তিনটি, উইকেট ছটি। রান কম দেয়ার হিসাবে সবার উপরেই থাকছেন রাবাদা। কারণ অভিষেকে এর আগে ফিদেল এডওয়ার্ডস ৬ উইকেট নিয়েছিলেন ২২ রান দিয়ে।

এখানেই শেষ নয়; দক্ষিণ আফ্রিকার ইতিহাসেও এটি ওয়ানডে ক্রিকেটে কোনো বোলারের সেরা বোলিং ইনিংসের রেকর্ড। এর আগে অভিষেক ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে একমাত্র ৫ উইকেট শিকারের রেকর্ড ছিল অ্যালেন ডোলাল্ডের (১৯৯১ সালে)। শুক্রবার ডোনাল্ডকেও ছাড়িয়ে গেলেন রাবাদা। অবশ্য ওয়ানডেতে এটি দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে তৃতীয় হ্যাটট্রিকের ঘটনা। এর আগে হ্যাটট্রিক করেছিলেন বর্তমান দলের অলরাউন্ডার জেপি ডুমিনি ও বর্তমান বোলিং কোচ চার্লস ল্যাঙ্গাভেল্ট।

explore

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

মার্চ ২০২১
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১