Sports Bangla

দাম্পত্য জীবনে মুশফিক

দাম্পত্য জীবনে মুশফিক

দাম্পত্য জীবনে মুশফিক
সেপ্টেম্বর ২৮
০২:৩১ ২০১৪

ambiagroupমুশফিককে স্বামী হিসেবে পেয়ে নিজেকে ভাগ্যবতী মনে করছেন তার সহধর্মিণী জান্নাতুল কিফায়াত মন্ডি। বিবাহত্তোর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে শনিবার এমনই অভিপ্রায় ব্যক্ত করেছেন তিনি। মন্ডি বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, আল্লাহর কাছে অনেক শুকরিয়া, অবশ্যই ভাগ্যবতী আমি তাকে (মুশফিক) পেয়ে।’
মুশফিক তার বিবাহোত্তর সংবর্ধনায় সাংবাদিকদের তার অনুভূতির কথা বলেছেন। তিনি বলেছেন, ‘অনুভূতি অবশ্যই ভাল। আমাদের জন্য সবাই দোয়া করবেন। যেভাবে বাংলাদেশের মানুষ আমাদের ভালবাসে, ভবিষ্যতে তাদের ভালবাসা যেন সেভাবে ধরে রাখতে পারি।’ ১৬ কোটি মানুষের চাওয়ার আপনার কাছে থাকে, নতুন স্ত্রীর চাওয়াটা কতটা পূরণ করতে পারবেন-এমন প্রশ্নে মুশফিক হেসে বলেন, ‘অবশ্যই। এটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটা পার্ট। ক্রিকেট জীবনের একটা অংশ। কিন্তু এটা পুরো একটা জীবন। আশা করব ক্রিকেটে যেমন ভাল খেলার চেষ্টা করছি, তেমন করে আমাদের জীবনটা যেন এভাবেই সুন্দর ভাবে চলে।’

অবশ্য প্রথমেই ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন মুশফিক। কেউ যদি ভুলবশত দাওয়াত থেকে বাদ পড়ে যান সে কারণে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি। মুশফিক বলেন, ‘প্রথমে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি, ভুলবশত কাছে এবং দূরের কাউকে দাওয়াত দিতে ভুল হলে। আমরা অনেক চেষ্টা করেছি সবাইকে দাওয়াত দেওয়ার ব্যাপারে।’

মুশফিকের বাবা মাহবুব হামিদ ছেলের বিয়েতে এতো বড় আয়োজন করতে পেরে যারপরনাই খুশি। পরিবার, আত্মীয়-স্বজন নিয়ে আগামী অক্টোবর মাসের ১০ তারিখে বগুড়ায় বড় অনুষ্ঠান আয়োজনের কথা জানিয়েছেন তিনি।

Bright-sports-shop_bigতিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের ক্যাপ্টেনের বিয়ে দেশের মধ্যে আলোচনাটা অন্যরকম থাকবে এটাই স্বাভাবিক। এটা আল্লাহ পাকের মেহেরবানি। দেশবাসীর কাছে আমি একটাই চাইব মানুষের জীবনে দুটি দিক বলে আমি মনে করি, একটা হলো কর্মজীবন অন্যটি হলো পারিবারিক জীবন। পারিবারিক জীবনটা দীর্ঘস্থায়ী। এটা যেন ওদের দীর্ঘ হয়, শান্তিময় হয় এবং ওরা যেন সুখে শান্তিতে থাকে এর জন্য দেশবাসী দোয়া করবেন, এটা আমি আশা করি।’

লাখো তরুণীর হৃদয় তছনছ করে জান্নাতুল কিফায়াত মন্ডির সঙ্গে গাঁটছাড়া বেঁধেছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। ‘এলিজিবল ব্যাচেলর’ মুশফিক প্রবেশ করবেন দাম্পত্য জীবনে। বৃহস্পতিবার বেইলি রোডের লেডিস ক্লাবে মুশফিক-মন্ডি জুটির বিবাহ অনুষ্ঠিত হয়। তার একদিন আগে বৃষ্টিভেজা দিনে সম্পূর্ণ ঘরোয়া পরিবেশেই বিমান বাহিনীর ফ্যালকন কনভেনশন সেন্টারে মুশফিকের গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান হয়। গেল দুইদিনে মুশফিকের পরিবারের করাকড়ি ছিল, সেখানে মিডিয়া কর্মীদের ছবি তোল এবং সংবাদ সংগ্রহের বিধিনিষেধ ছিল। তাই অনেকটা ঘরোয়া আয়োজনের সম্পন্ন হয়েছে মুশফিক-মন্ডির বিয়ে এবং হলুদের অনুষ্ঠান।

মুশফিক যে মন্ডিকে পেয়ে বেজায় খুশি সেটা তার চাল-চলনেই প্রকাশ পায়। বিয়ের আগের দিন গায়েহলুদে নববধূ জান্নাতুল কিফায়াতকে সঙ্গে রোমান্টিক একটা গানের সঙ্গে নেচেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক। ক্রিকেটের গণ্ডির বাইরে মন্ডি নামের তরুণীর সঙ্গে জুটিটা যে দারুণ জমেছে, শুরুতেই যেন সেটাই বুঝিয়ে দিলেন মুশফিক।

ভারতের এ সময়ের জনপ্রিয় গায়ক অরিজিৎ সিংয়ের গাওয়া এক ভিলেন ছবির ‘পাল দো পাল’ গানটির সঙ্গে নেচেছেন দুজনে। প্রথমে মঞ্চে ওঠেন মুশফিক। বাঁ প্রান্তে ছিলেন তিনি। ডান প্রান্ত দিয়ে মঞ্চে প্রবেশ করেন কিফায়াত। এ সময় বন্ধু-স্বজনেরা চিৎকার করে দুজনকে উৎসাহ দেন। তারপর দুজনে দুর্দান্তভাবে নেচে চলেন।

সে সব অবশ্য মিডিয়ায় আগের দিন প্রকাশ হওয়ার কোনো সুযোগ ছিল না। কেননা সম্পূর্ণ ঘরোয়া আয়োজনে গায়ে হলুদ ও বিয়ের অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। কিন্তু শনিবার এসবের বালাই ছিল না। তাইতো লোকে লোকারণ্য হয়েছিল আর্মি গলফ গার্ডেন। বিসিবির সভাপতি থেকে শুরু করে অনেক বোর্ড পরিচালকও উপস্থিত ছিলেন এ অনুষ্ঠানে। আহমেদ সাজ্জাদুল আলম ববি, আকরাম খান, নাঈমুর রহমান দুর্জয় থেকে শুরু করে বেশির ভাগ পরিচালক উপস্থিত থেকে মুশফিককে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। সঙ্গে ছিলেন রাজনৈতিক অনেক ব্যক্তিবর্গ।

জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটাররা দেশের বাইরে থাকায় উপস্থিত হতে পারেননি। তারপরও অনেক ক্রিকেটার উপস্থিত ছিলেন সংর্বধনা অনুষ্ঠানে। সোরওয়ার্দী শুভ তার স্ত্রী-সন্তান নিয়ে হাজির হন অনুষ্ঠানে।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ মুশফিক-মন্ডির বিবাহাত্তোর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। এরশাদ মুশফিকের সংর্বধনা অনুষ্ঠানে এসে সাংবাদিকদের বলেন, ‘মুশফিক দেশের কৃতী সন্তান। নতুন জীবন শুরু করেছে। দোয়া করি অনেক সুখি হোক তারা।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দাওয়াত দেওয়া হলেও তিনি জাতিসংঘের সাধারণ সভায় ব্যস্ততার কারণে আসতে পারেননি। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া জামালপুরে সমাবেশের কারণে আসতে পারেননি।

ক্রিকেট বোর্ডের সর্বোচ্চ কর্তা নাজমুল হাসান পাপন মুশফিকের বিবাহত্তোর সংবর্ধনায় উপস্থিত ছিলেন। মুশফিকের বিয়ে নিয়ে এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি মুশফিক আমাদের জাতীয় দলের অধিনায়ক। একটা জিনিস ভুললে চলবে না সে আমাদের সেরা ব্যাটসম্যান। পারফর্মম্যান্স অনুযায়ী যদি মূল্যায়ন করি বাংলাদেশের সেরা ব্যাটসম্যান মুশফিক। আমার মনে হয় না বিয়ের কারণে মুশফিকের পারফর্মম্যান্সে প্রভাব পড়বে। বরং আমি মনে করি ক্রিকেটে যেমন সফল হয়েছে, সেভাবে পারিবারিক জীবনেও সফল হবে সে। তার বিবাহিত জীবনটা অনেক সুখের হোক এটাই আমরা কামনা করি।’

বিয়ের অনুষ্ঠানে বিসিবির ক্রিকেটি পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান উপস্থিত ছিলেন সস্ত্রীক। তিনি মুশফিকের জন্য শুভ কামনা করেছেন। আকরাম খান বলেন, ‘মুশফিক তার জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু করেছে। ক্রিকেটের মতো এখানেও সে সফল হবে।’

royal-magnum_bigসাবেক ক্রিকেটার ও বিসিবির পরিচালন নাঈমুর রহমান দুর্জয়ও শুভকামনা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘সংসার জীবনে যেন সাফল্য অর্জন করতে পারে মুশফিক সেই কামনাই থাকল। সারা জীবন দুই জন এক সাথে সুখ-দুঃখের সাথী হয়ে থাকবে এ প্রত্যাশায় করছি।’

আরেক সাবেক ক্রিকেটার রকিবুল হাসান বলেছেন, ‘ক্রিকেটে মুশফিক আউট হয়েছে, প্রত্যাশা থাকবে জীবনের এ ইনিংসে যেন সে নটআউট থাকতে পারে। জীবন নতুন ইনিংসে নতুন মানুষকে নিয়ে সারাজীবন সুখে শান্তিতে থাকুক এ কামনাই করি।’

প্রসঙ্গত, গত বছর অক্টোবর মাসে আংটি বদল করেন মুশফিক ও মন্ডি। জাতীয় দলের আরেক ক্রিকেটার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের শ্যালিকা মন্ডি। মুশফিকের সঙ্গে পরিচয় গত বছরের শুরুতে একটি পারিবারিক অনুষ্ঠানে। পরিচয় থেকে টুকটাক কথাবার্তা, এরপর প্রেম। অবশেষে শুভ পরিণয়।

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০২০
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০