Sports Bangla

চ্যাম্পিয়ন শেখ জামাল

চ্যাম্পিয়ন শেখ জামাল

চ্যাম্পিয়ন শেখ জামাল
জুলাই ১৬
০৬:২৮ ২০১৪

শিরোপা জয় করার পথে শক্তভাবেই এবার হাটছিল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। আর শেষ পর্যন্ত দুই ম্যাচ হাতে রেখেই লক্ষ্যে পৌঁছে গেল তারা। মঙ্গলবার আবাহনীকে ১-০ গোলে হারিয়ে দ্বিতীয় বারের মত বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা উৎসবে মাতল ধানমন্ডির এই দলটি। এই জয়ে একই সাথে শেষ হলো আবাহনীর শেষ আশাটাও।

এদিন শেখ জামালের শিরোপা জয়ের নায়ক ছিল হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড ওয়েডসন এনসেলসি। ২৫ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ৫৮ পয়েন্ট। আর তাদের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আবাহনীর সমান সংখ্যক ম্যাচে সংগ্রহ ৪৬ পয়েন্ট। ফলে আবাহনীর চেয়ে শেখ জামাল এগিয়ে আছে ১২ পয়েন্টে। ২৫ ম্যাচের ১৬ জয় ও সাত ড্র করে তারা। পুরো লিগে তাদের হার মাত্র একটি। অবশিষ্ট ম্যাচগুলো আবাহনী জয় করলেও আর শীর্ষে উঠতে পারবে না। ফলে দুই ম্যাচ হাতে রেখেই এই শিরোপা জয় করলো মামুনুল-সনি নর্দেরা।

ম্যাচের ২২ মিনিটে প্রথম সুযোগ আসে জামালের। কিন্তু এসময় দলের অধিনায়ক মামুনুলের শট বাইরে চলে যায়। ৩২ মিনিটে গোল করার সুযোগ পেয়েও কালে লাগাতে পারেনি আবাহনীর ঘানাইয়ান ফরোয়ার্ড আইডু ইব্রাহিম। ফলে প্রথমার্ধ শেষে গোল শূন্য থাকে দুই দল। বিরতি থেকে ফিরে আবারও সুযোগ পায় আবাহনী। কিন্তু দলের সেরা অস্ত্র মরিসন জামালের গোলরক্ষক হিমেলকে একা পেয়েও ব্যর্থ হন।

৭১ মিনিটে জয় সূচক গোল পায় শেখ ধানমন্ডির দল শেখ জামাল। ২০ গজ দূর থেকেই ওয়েডসন এনসেলমির নেয়া শট আবাহনীর জালে জড়ায় (১-০)। এরপর গোলের জন্য মরিয়া হয়ে খেলতে থাকে আবাহনী। ৮৯ মিনিটে আবাহনীর সুয়ারেজ ডি-বক্সের ভিতর থেকে শট নিলে জামালের গোলরক্ষক হিমেল তা আটকে দেন। ফলে শেষ পর্যন্ত জয় নিয়ে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে যোসেফ আফুসির শিষ্যরা। পয়েন্টের হিসেবে শেখ জামালের সবচেয়ে কাছে থাকা আবাহনী পিছিয়ে আছে ১২ পয়েন্ট। বাকি দুই ম্যাচে জয় পেলেও আবাহনীর পয়েন্ট থাকবে শেখ জামালের চেয়ে তিন পয়েন্ট কম। তাই তিন ম্যাচ হাতে রেখেই বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে সেরা দল হিসেবেই শিরোপা জয় করল মামুমুলরা।

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

ডিসেম্বর ২০২০
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১