Sports Bangla

ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রযুক্তি

ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রযুক্তি

ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রযুক্তি
মে ১৯
১৫:৩৭ ২০১৫

ambia flatজাতীয় ক্রিকেট লিগের সর্বশেষ আসরটিতে রংপুর বিভাগ ও ঢাকা মেট্রোর মধ্যকার ম্যাচে ফিক্সিংয়ের অভিযোগ এনেছিল খুলনা বিভাগ। এ নিয়ে বেশ সোরগোলও পড়েছিল ক্রিকেটাঙ্গনে। মিডিয়াগুলোতেও এ নিয়ে লেখালেখি হচ্ছে বিস্তর। ফলে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের এই অভিযোগের বিষয়ে নড়েচরে বসেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। দু’দিন আগে বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন ও প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন এই নিয়ে বিবৃতি দিয়েছিলেন; জানিয়েছিলেন বিষয়টি নিয়ে বিসিবির তদন্তের কথা। আর মঙ্গলবার বিসিবি আম্পায়ার্স কিমিটির প্রধান নাজমুল করিম টিংকু জানিয়েছেন, ফিক্সিং করার মতো ঘটনা কমিয়ে আনতে আগামী বছর ঘরোয়া ক্রিকেটের সব ম্যাচেই প্রযুক্তির ব্যবহার করা হবে।

মঙ্গলবার বিসিবির আম্পায়ার্স কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক শেষে আম্পায়ার্স কমিটির চেয়ারম্যান নাজমুল করিম টিংকু সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন। কমিটির বৈঠক নিয়ে তিনি বলেছেন, ‘এটা আমাদের নিয়মিত একটি মিটিং। সামনে অনেক ম্যাচ ও সিরিজ আছে, সে সব নিয়েই আম্পায়ারদের সঙ্গে মতবিনিময় করা হয়েছে এই বৈঠকে। জুন মাসে আমাদের চুক্তি নবায়নের বিষয় থাকে। এটা নিয়েও আলোচনা হয়েছে। এ ছাড়া আগামী মাসে (১৫, ১৬ ও ১৭) শ্রীলঙ্কায় আইসিসির আম্পায়ারদের মিটিং আছে। সেখানে পরবর্তী বছরের শিডিউল নির্ধারিত হবে; কোন কোন দেশে আম্পায়ারদের যাওয়া হবে, বিষয়গুলোর সিদ্ধান্ত হবে।

Kwality (1)অন্যদিকে, আগামী বছর আমাদের দেশে যুব বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে। ওই আসরের অনফিল্ড এবং রিজার্ভ আম্পায়ার হিসেবে স্থানীয় আম্পায়ারদের রাখার বিষয়েও সভায় আলোচনা হয়েছে।’ জাতীয় লিগের ইস্যুতে তিনি সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন, ‘জাতীয় লিগের বিষয়ে আম্পায়ারদের প্রতিবেদনে যা দেওয়ার তা আমরা দিয়েছি। বিষয়টি এখন তদন্তাধীন। এ বিষয়ে সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে বোর্ড সভাপতি নিজেই কথা বলবেন।’

ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রযুক্তি ব্যবহার হবে বলে সংবাদ মাধ্যমকে জানালেন আম্পেয়ার্স কমিটির চেয়ারম্যান। তিনি বলেছেন, ‘এটা আমরা শুরু করেছি। কয়েকটি ম্যাচ রেকর্ডিং হয়েছে। বিসিএলের ওয়ানডে সংস্করণের পুরো ম্যাচ রেকর্ড হয়েছে। এনসিএলের প্রথম ম্যাচগুলোতেও হয়েছে। ভেন্যুতে সুবিধা থাকলে আমরা প্রযুক্তির ব্যবহার করেছি। বিকেএসপিতে যথাযথ সুযোগ নেই বলে ব্যবহার করতে পারিনি। তবে আমরা ভবিষ্যতে এই সুবিধা আরও প্রয়োগ করব। এবার ২টি ক্যামেরা ব্যবহার করে রেকর্ড করা হয়েছে। আগামী বছর থেকে সব খেলায় প্রযুক্তির ব্যবহার থাকবে।’

প্রযুক্তি ব্যবহার করলেই কি ফিক্সিং কমবে? এ প্রশ্নে তিনি বলেছেন, ‘তা তো অবশ্যই। বিষয়গুলো নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব। এরপরও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে এ সব ঘটনা ঘটছে। ফিক্সিং হচ্ছে। প্রযুক্তির ব্যবহার যত বাড়বে, আম্পায়ারিংয়ের মান তত বাড়বে। প্রযুক্তির কারণে একটি বিষয় কয়েকবার দেখে সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে।’

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

নভেম্বর ২০২০
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০