Sports Bangla

গর্বিত হওয়া উচিত তাদের!

গর্বিত হওয়া উচিত তাদের!

গর্বিত হওয়া উচিত তাদের!
মার্চ ২৭
১০:১০ ২০১৫

Exploreসেমিফাইনালে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের বাজে পারফরমেন্সের সমালোচনা করেছে অস্ট্রেলিয়ান মিডিয়া। পাশাপাশি মাইকেল ক্লার্কদের ৯৫ রানের অসাধারণ জয়ের উচ্ছ্বসিত প্রশংসাও করে দেশটির সংবাদমাধ্যম। অস্ট্রেলিয়ার দেয়া ৩২৯ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেম ৪৬.৫ ওভারে ২৩৩ রানে গুটিয়ে যায় ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ভারত। অস্ট্রেলিয়ান সংবাদমাধ্যম জানায়, বড় লক্ষ্যের পেছনে ছুটতে গিয়ে বিরাট কোহলি ও ধোনির সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে দলকে উজ্জীবিত করা উচিত ছিল, তবে তারা সেটি পারেননি।

অস্ট্রেলিয়ার ‘দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফ’ জানায়, অস্ট্রেলিয়ার দেয়া লক্ষ্য তাড়া করার কোনো সুযোগ সৃষ্টি করতে হলে ধোনি ও কোহলি অসাধারণ কিছু করে দেখানো উচিত ছিল তবে তারা সেটা করে দেখাতে পারেননি।’

Kwality (1)ক্রিজের মাঝপথে থাকতেই ধোনি ‘আত্মসমর্পণ’ করেছেন বলে জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার আরেকটি জাতীয় দৈনিক। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৫ রান করে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের সরাসরি থ্রোতে রানআউট হয়ে সাজঘরের পথ ধরেন তিনি।

রিপোর্টে বলা হয়, ‘গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের থ্রো’টি ছিল অসাধারণ। তবে ধোনিকে দেখে মনে হয়েছে সে ক্রিজের মাঝপথে থাকতেই আত্মসমর্পণ করেছে। রানআউট থেকে বাঁচতে না ডাইভ দিলেন, না কোনো চেষ্টা চালালেন। তার বিদায়ে ভারতের শেষ আশাটুকুও নিভে গেল।’

রিপোর্টে ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক কেভিন পিটারসেনের একটি বক্তব্যকে উদ্ধৃতি আকারে প্রকাশ করা হয়। রানআউট থেকে বাঁচতে ধোনি ভালো প্রচেষ্টা না চালানোয় ‘বিস্মিত’ হন কেপি।

পিটারসেন বলেন, ‘আমি জানিনা, ধোনি সেখানে এমন করলো কেন। সে চেষ্টা করলে রানআউট থেকে রক্ষা পেতে পারতো কিন্তু তার মধ্যে কোনো তৎপরতাই দেখা গেল না।’

ambia Logoধোনির উদ্ভট ইনিংস: ‘সিডনি মর্নিং হেরাল্ড’ তো ধোনির ইনিংসকে ‘উদ্ভট’ বলে আখ্যা দেয়। তারা জানায়, ‘৩২৯ রানের লক্ষ্যের পেছনে ছুটতে গিয়ে শুরুতে বেশ কয়েকটি উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় ভারত। তবে ধোনি ক্রিজে থাকায় তাদের আশা টিকে ছিল। বিশেষ করে শেন ওয়াটসনকে টানা দুটি ছক্কা মেরে দারূণ কিছুর ইঙ্গিত দেন ধোনি। তবে এর একটু পর গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের অসাধারণ থ্রো’তে রানআউট হয়ে সাজঘরে ফিরতে হয় ভারতীয় অধিনায়ককে। কিন্তু রানআউট থেকে রক্ষা পেতে তাকে কোনো চেষ্টা চালাতেই দেখা যায়নি। ভারতীয় অধিনায়কের ‘উদ্ভট’ ইনিংস অদ্ভূতভাবে শেষ হওয়ার সাথে সাথে ভারতের আশাও শেষ হয়ে যায়।’

অস্ট্রেলিয়ার আরেকটি দৈনিক শিরোনাম করেছে, ‘তারা (ভারতীয় দল) বাড়ি ফিরে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারবে।’ রিপোর্টে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভারতের টেস্ট সিরিজের বাজে পারফরমেন্স এবং ত্রি-দেশীয় সিরিজের ভঙ্গুর ভারতের পারফরমেন্স উপস্থাপন করা হয়। ধোনিরা এখন বাড়ি ফিরতে পেরে খুশি হবেন বলে সংবাদ-মাধ্যমটিতে বলা হয়।’

রিপোর্টে বলা হয়, ‘হতে পারে ভারত ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন। তবে গ্রীষ্মের শুরু থেকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তারা যেই পারফরমেন্স দেখিয়ে আসছে তাতে করে বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল পর্যন্ত আসতে পারায় তাদের ‘গর্বিত’ হওয়া উচিত। তারা টেস্ট সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ২-০ ব্যবধানে হেরেছে, এরপর ত্রিদেশীয় সিরিজের অস্ট্রেলিয়ার কাছে একবার ও ইংল্যান্ডের কাছে দু’বার হেরেছে। ভারতীয় দলের অনেকে নভেম্বর থেকে অস্ট্রেলিয়ায় রয়েছে। বিশ্বকাপ ছাড়া তারা বাড়িতে ফিরলেও এতোদিনে পর স্বজনদের কাছে পাবে ভেবে তারা স্বস্তি ফিরে পেতে পারে।’

এদিকে অস্ট্রেলিয়া ৩২৮ রান করার পরে ভারতের জয়ের আশায় তামিলনাড়ুর সুধাকর নামে এক যুবক ছুরি দিয়ে নিজের জিভ কেটে মন্দিরে ঈশ্বরের উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করেন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে তার পরিবারের লোকজন এবং বন্ধুরা হাসপাতালে ভর্তি করে।

হতাশ ক্রিকেটপ্রেমীদের মনোবল চাঙ্গা করতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি অবশ্য বলেছেন, ‘জয় এবং পরাজয় জীবনেরই অঙ্গ। গোটা টুর্নামেন্টে টিম ইন্ডিয়া দারুণ ক্রিকেট খেলেছে। আমরা ওদের জন্য গর্বিত।’

ভারত হেরে যাওয়ায় দেশটির বিভিন্ন অংশে ক্ষুব্ধ সমর্থকরা টেলিভিশন সেট ভেঙে ফেলেছে। বিভিন্ন জায়গায় ভারতীয় ক্রিকেটারদের পোস্টার আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দিয়েছে তারা।

ভারতের কানপুরে ক্ষুব্ধ সমর্থকরা টিভি ভেঙে ফেলা ছাড়াও ভারতীয় দলের বিরাট কোহলি, শিখর ধাওয়ান, মহেন্দ্র সিং ধোনি, অশ্বিনসহ বিভিন্ন ক্রিকেটারদের ছবিতে আগুন ধরিয়েদেয়।

ক্রিকেটপ্রেমীরা ‘ধোনি-কোহলি মুর্দাবাদ’সহ নানা ধরনের স্লোগান দিতে শুরু করেন। গয়া, পূর্ণিয়া, মুজাফফরপুর, আওরঙ্গাবাদ, পাটনায় সমর্থকরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। উত্তর-প্রদেশের কানপুর, গোরখপুর প্রভৃতি স্থানে সমর্থকরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

বিহারের পাটনায় টেলিভিশন সেট প্রকাশ্য রাজপথে এনে ভাঙচুর করেন এক ভক্ত। বিহারের বিভিন্ন স্থানে এক ডজনের বেশি টেলিভিশন সেট ভেঙে ফেলা হয়েছে। কয়েকটি স্থানে ক্ষুব্ধ সমর্থকদের বিক্ষোভ হটাতে পুলিশকে লাঠি চালাতে হয়েছে।

অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে পাটনায় অনেক রাত পর্যন্ত রাস্তায় পুলিশকে টহল দিতে হয়েছে। রাঁচিতে অধিনায়ক ধোনির বাড়ির সামনে সম্ভাব্য বিক্ষোভ মোকাবিলা করতে সেনাবাহিনীর জওয়ানরা টহল দিচ্ছে।

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০২০
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০