Sports Bangla

ক্রিকেটার তৈরিই প্রধান লক্ষ্য

ক্রিকেটার তৈরিই প্রধান লক্ষ্য

ক্রিকেটার তৈরিই প্রধান লক্ষ্য
মে ২৫
১০:৫৬ ২০১৫

Explore1আগামী জুন থেকে শুরু হওয়ার কথা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) হাইপারফরম্যান্স (এইচপি) ইউনিটের কার্যক্রম। সেই লক্ষ্যে সোমবার ২২ সদস্যের হাইপারফরম্যান্স দল ঘোষণা করা হয়েছে। এই দলে সুযোগ পেয়েছেন জাতীয় দলে অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা দুই ওপেনিং ব্যাটসম্যান রনি তালুকদার ও লিটন কুমার দাস। তাদের সঙ্গে রয়েছেন জাতীয় দলে খেলা বেশ ক’জন ক্রিকেটারও।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে ২০১৫-১৬ মৌসুমের হাই পারফরম্যান্স দলের ২২ ক্রিকেটারের নাম ঘোষণা করেছেন বিসিবির সহ-সভাপতি ও হাই পারফরম্যান্স ইউনিটের প্রধান মাহবুব আনাম।

আগামী জুন থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৪ মাস নিবিড় অনুশীলনে ব্যস্ত থাকতে হবে দলে সুযোগ পাওয়া ২২ ক্রিকেটারকে। তেমনটাই জানিয়েছেন মাহবুব আনাম। তিনি আরও জানিয়েছেন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য এই ক্রিকেটারদের যথাযথ ভাবে তৈরি করাই হবে এই হাই পারফরম্যান্স ইউনিটের প্রধান লক্ষ্য।

ambiagroupমূলত জাতীয় দলের প্রয়োজন মেটাতেই এমন উদ্যোগ নিয়েছে বিসিবি। ২০০৪ সাল থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত যেভাবে হাইপারফরম্যান্স ইউনিট চলেছে, এবারে তেমনভাবে কার্যক্রম চলবে না বলেও জানিয়েছেন মাহবুব আনাম। এই বিষয়ে তিনি বলেছেন, ‘২০০৩ সালের বিশ্বকাপে বাজে পারফরম্যান্সের তাৎক্ষণিক প্রয়োজন মেটাতেই ২০০৪ থেকে ২০০৭ সালে হাই পারফরম্যান্স প্রোগ্রাম হয়েছিল। এখন দল ভাল অবস্থানে আছে। এবারের লক্ষ্য আরেক ধাপ সামনে এগুনো। যেখানে জাতীয় দলের প্রয়োজনীয়তাও গুরুত্ব পাবে।’

হাইপারফরম্যান্স বিষয়ে এই প্রোগ্রামের মহাব্যবস্থাপক ও ট্রেনার স্টুয়ার্ট কার্পিনেন বলেছেন, ‘আন্তর্জাতিক মানের খেলোয়াড়দের সুনির্দিষ্ট উন্নয়ন করাই হবে আমাদের লক্ষ্য।’

হাই পারফরম্যান্স প্রোগ্রামে স্থানীয় কোচদের মধ্যে থাকবেন সারওয়ার ইমরান, এহসান, ওয়াহিদুল হক ও গোলাম মুর্তজা। এ ছাড়া কনসালটেন্ট হিসেবে থাকবেন জাতীয় দলের দুই সাবেক খেলোয়াড় মোহাম্মদ রফিক ও খালেদ মাসুদ পাইলট।

Kwality (1)এসব প্রোগ্রাম চালাতে অনেক টাকা খরচ করতে হয় বলে উল্লেখ করেছেন মাহবুব আনাম। তিনি জানান, হাই পারফরম্যান্স প্রোগ্রামের বাজেট প্রায় ৮ কোটি টাকা।

হাইপারফরম্যান্স ইউনিটের পরিকল্পনা প্রসঙ্গে মাহবুব আনাম বলেছেন, ‘আগামী মৌসুমে বাংলাদেশের প্রয়োজন অনুযায়ী নতুন ব্যাচ গঠন করা হবে। প্রতিটি খেলোয়াড়ের অনুশীলনের সব তথ্যই এখন থেকে সংরক্ষণ করা হবে। খেলোয়াড়দের অনুশীলনের ব্যাপারে প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের সঙ্গে আলোচনা করে আরও কিছু পরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে।’

উল্লেখ্য, হাই পারফরম্যান্স প্রোগ্রামের ডিরেক্টর অব কোচিং হিসেবে থাকছেন পল টেরি। এ ছাড়া প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করবেন ম্যাল লয়। মহাব্যবস্থাপক হিসেবে থাকছেন স্টুয়ার্ট কার্পিনেন।

হাইপারফরম্যান্সদল : রনি তালুকদার, লিটন দাস, সাদমান ইসলাম, তাসামুল হক, মাহমুদুল হাসান, সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন, মোহাম্মদ মিঠুন, তাইবুর রহমান, জুবায়ের হোসেন, সাকলাইন সজীব, নিহাদ-উজ-জামান, নাসুম আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, আবু জায়েদ চৌধুরী, শুভাশীষ রায়, মেহেদি হাসান, কামরুল ইসলাম, দেওয়ান সাব্বির আহমেদ, নুরুল হাসান, জাবিদ হোসেন, ইরফান শুক্কুর।

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০২০
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০