Sports Bangla

‘কিডস রিড’ প্রকল্পের পুরস্কার বিতরণী

‘কিডস রিড’ প্রকল্পের পুরস্কার বিতরণী

‘কিডস রিড’ প্রকল্পের পুরস্কার বিতরণী
এপ্রিল ২৭
০৪:৩৬ ২০১৫

ambia flatচট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন বলেন, ‘বর্তমানে সৃশনশীল প্রশ্নে পরীক্ষা হচ্ছে। পড়ার অভ্যাস না থাকলে সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবে না শিক্ষার্থীরা। তাই তাদের সিলেবাসের বাইরে বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে।’ তিনি গত ২৫ এপ্রিল শনিবার বিকেলে নগরীর বৌদ্ধ মন্দির সড়কের ন্যাশনাল প্রাইমারি স্কুলে এক পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন।

দি হংকং অ্যান্ড সাংহাই ব্যাংকিং করপোরেশন লিমিটেড (এইচএসবিসি)-এর অর্থায়নে ‘কিডস রিড’ নামে বিশ্বব্যাপী এ বই পড়া প্রকল্পের অংশ হিসেবে ব্রিটিশ কাউন্সিল এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।  ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশ রিসোর্স সেন্টারের ম্যানেজার সারওয়াত রেজা’র উপস্থাপনায় মেজবাহ উদ্দিন আরো বলেন, ‘বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থা এগিয়ে যাচ্ছে, পাশের হারও বাড়ছে। কিন্তু শিক্ষার্থীরা শুধু পরীক্ষা পাশের জন্য পড়ছে। ফলে পাঠাভ্যাস হারিয়ে যাচ্ছে।’ তিনি শিশুদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানতে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক বই পড়ানোর জন্য অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান।

Kwality (1)‘কিডস রিড’-এ অংশগ্রহণকারী চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষার্থীদের মধ্যে গত মার্চে এক চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এতে ৫শয়েরও বেশি চিত্রকর্ম জমা পড়ে। প্রতিটি ক্লাশের ১০ জন বিজয়ীকে অতিথিরা পুরস্কার ও সার্টিফিকেট তুলে দেন এ অনুষ্ঠানে।
এ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশ-এর ডেপুটি ডিরেক্টর ম্যাট পুশে, এইচএসবিসি’র করপোরেট সাসটেইনেবিলিটি ম্যানেজার আবদুল্লাহ জুবায়ের, চট্টগ্রামে ব্রিটিশ কাউন্সিলের লাইব্রেরি কোঅর্ডিনেটর মাসুদুল আলমসহ ব্রিটিশ কাউন্সিল ও এইচএসবিসি’র কর্মকর্তারা।

কক্সবাজারেও এ প্রকল্পের আরেকটি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় কক্সবাজার আদর্শ মহিলা কামিল মাদরাসায় গত ২৪ এপ্রিল শুক্রবার। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশ-এর ডেপুটি ডিরেক্টর ম্যাট পুশে।

বিশ্বব্যাপী এ বই পড়া প্রকল্পের এশিয়ার ৮টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ একটি। এ প্রকল্পে বাংলাদেশে ন্যাশনাল প্রাইমারি স্কুলসহ চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের মোট ছয়টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করছে। প্রকল্পের অন্য পাঁচটি প্রতিষ্ঠান হলো চট্টগ্রামের নজিরিয়া নঈমিয়া মাহমুদিয়া সিনিয়র মাদরাসা, পতেঙ্গার কাঠগড়ের মিরাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ঘাটফরহাদবেগ সরকারি বালক প্রাথমিক বিদ্যালয়, কক্সবাজারের কক্সবাজার আদর্শ মহিলা কামিল মাদরাসা ও খরুলিয়া তালিমুল কোরান দাখিল মাদরাসা। শিক্ষার্থীদের মধ্যে পাঠাভ্যাস গড়ে তুলতে প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রত্যেকটিকে ১০০টি করে শিশুদের উপযোগী বই দেয়া হয় পড়ার জন্য। ব্রিটিশ কাউন্সিল বইগুলো শিক্ষার্থীদের পড়তে সহায়তা করার জন্য এসব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের প্রশিক্ষণও দেয়।

লেখক সম্পর্কে

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

স্পোর্টসবাংলা ডেস্ক

এই ধরনের আরো লেখা

০ মন্তব্য

এখনো কোনো মন্তব্য আসেনি!

এই মুহূর্তে এখানে কোনো মন্তব্য নেই, আপনি কি একটি মন্তব্য দেবেন?

মন্তব্য লিখুন

মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

ডিসেম্বর ২০২০
সোমমঙ্গলবুধবৃহস্পতিশুক্রশনিরবি
« আগস্ট  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১